সূচনাটা ভালোই হয়েছে শ্রীলঙ্কার

সূচনাটা ভালোই হয়েছে শ্রীলঙ্কার

লক্ষ্য ৩০০ রান। দক্ষিণ আফ্রিকার দুর্দান্ত বোলিং আক্রমণের বিপক্ষে এই রান চ্যালেঞ্জিংই বটে।

 

এই রান তাড়া করতে নেমে দারুণ সূচনা করেছে শ্রীলঙ্কা। শুরুতে দুই ওপেনার উপুল থারাঙ্গা ও নিরোশান ডিকওয়েলা দারুণ দৃঢ়তা দেখান। ৬৯ রানের একটা জুটি গড়ে দলকে ভালো একটা ভিত গড়ে দেন। এই ভিতের ওপর দাঁড়িয়ে ভালোভাবেই এগিয়ে যাচ্ছে সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত শ্রীলঙ্কা ১১ ওভারে ৯১ রান করেছে এক উইকেট হারিয়ে। থারাঙ্গা ৩০ ও কুশল মেন্ডিস ১০ রানে অপরাজিত রয়েছেন।  দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে তাঁরা ভালোই খেলছেন।

এর আগে হাশিম আমলার দারুণ একটি সেঞ্চুরিতে ২৯৯ রান করে দক্ষিণ আফ্রিকা। র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষে থাকা দলটি টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে খুবই সতর্কতার সঙ্গে শুরু করে। হাশিম আমলা ও ডি কক জুটি ভালোভাবেই খেলছিলেন। অবশ্য ডি কক ব্যক্তিগত ২৩ রানের মাথায় সাজঘরে ফিরে যান।

এর পরই আমলা ও ডু প্লেসিস দারুণ দৃঢ়তা দেখান। দুজনে ১৪৫ রানের জুটি গড়ে দলকে পাহাড়সম ইনিংস গড়ার পথ দেখিয়েছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা হয়নি। ৩০০ রানই করতে পারেনি তারা।

তবে আমলা ১১৫ বলে ১০৩ রানের দারুণ একটি ইনিংস খেলে দলের এই চ্যালেঞ্জিং ইনিংসের ভিত গড়ে দেন। তাঁকে যোগ্য সহায়তা দিতে গিয়ে ডু প্লেসিস ৭০ বলে ৭৫ রানের একটা ঝলমলে ইনিংস খেলেন। শেষ দিকে এসে জেপি ডুমিনি ২০ বলে ৩৮ রানের একটা ঝড়ো ইনিংস খেলে দলের ইনিংস ৩০০-র কাছাকাছি নিয়ে যান।

দীর্ঘ দুই বছর পর ওয়ানডে দলে ফিরে মালিঙ্গা উইকেটশূন্য থেকেছেন এদিন। ১০ ওভার বল করে ৫৭ রান খরচ করেছেন তিনি। প্রদীপ ৫৪ রানে দুটি এবং লকমল ও প্রসন্ন একটি করে উইকেট পান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *